Space for rent
Tuesday, 23 January, 2018, 7:34 PM
হারানো অধিকার আমি ফিরে পেতে চাই
Published : Thursday, 4 January, 2018 Time : 11:53 PM, Count: 1070
A+ A- A
পৃথিবী এবং বসবাসরত মানুষ স্বার্থপর এটা বলার অপেক্ষা রাখে না। পৃথিবীর সৃষ্টি থেকেই উপরের স্বার্থান্বেষী মহল নিম্ন শ্রেণী পেশার মানুষের অধিকার নিয়ে বিরোধীতা করে আসছে। ইতিহাসের পাতায় পাতায় দেখা যায় সব সময় নিম্ন শ্রেণী পেশার মানুষ নিপীড়িত ও নির্যাতিত। আমাদের এই শাসন শোষন থেকে বাঁচার এক মাত্র উপায় হল ঐক্যবদ্ধ থাকা।আমাদের ঐক্যই পারে ঐ শোষিত ও শাসিত সুবিধাভুগীদের অহংকার ও অহমিকার চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দিতে যে আমরা কেন অবহেলিত হয়ে বৈষম্যের শিকার হবো?মানুষ হিসেবে সবাই চায় ভালেভাবে বাঁচতে এবং উন্নত জীবনযাপন করতে।

গত ২৩ ই ডিসেম্বর আমরা প্রাথমিক সহকারি শিক্ষকবৃন্দ যখন আমাদের বেতন বৈষম্য দুর করার জন্য অনশনে বসেছিলাম, তখন আমরা দেখলাম সামান্য কিছু সুবিধাভোগী রুপান্তর মানুষ আমাদের অধিকারের বিরোধীতা করতে লাগলো এবং আমাদের আন্দোলনকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার অপচেষ্টা করেছিলো।

তাদের এমন আচরনে দেশের প্রায় চার লক্ষ শিক্ষক হতবাক হয়ে গেল। আমি এ উপর মহলের স্যারদেরকে বলবো আপনারা আমাদেরকে আগে জানুন তারপর মন্তব্য করুন। স্বাধীন বাংলার প্রথম পে স্কেলে প্রধান শিক্ষক ও সহকারি শিক্ষকদের বেতন স্কেল ব্যাবধান ছিলো এক ধাপ কিন্তু ধাপে ধাপে ২০১৪ সালে এ ব্যাবধান তিন ধাপে উন্নীত হলো। তাহলে কি বলবো স্বাধীনতার সুফল থেকে আমর বঞ্চিত?

স্বাধীনতার ৪৪ বছর পরে সবার ভাগ্যের পরিবর্তন এসেছে কিন্তু একমাত্র প্রাথমিক সহকারি শিক্ষকরা বৈষম্যের শিকার হয়েছে। আমরা একই যোগ্যতা নিয়ে নিয়োগ পাই কিন্তু বেতন গ্রেড তিন ধাপ বৈষম্যে পাই। এখানে আমাকে আমার প্রাপ্য অধিকার থেকে বঞ্চিত করা হয়নি? আমরা মানি এবং জানি প্রধান শিক্ষক ও সহকারি শিক্ষকদের মাঝে এক ধাপ বেতন গ্রেড ব্যাবধান থাকবে তা স্বাভাবিক। কিন্তু এ ভাবে কিছু জ্ঞানপাপীর ভুল পরামর্শে বেতন ব্যাবধার চার ধাপ করার প্রস্তাব এটাতো অস্বাভাবিক।

তাই এই অস্বাভাবিক প্রস্তাবটা মানতে পারছি না। আমরা আমাদের এ বৈষম্য নিয়ে প্রতিবাদ করার অধিকার আমাদের থাকবে না কেন? আমরা প্রতিটি জেলায় ও থানায় স্মারকলিপি দিয়েছিলাম কিন্তু তার কোন প্রতিদান পাইনি। আমরা ২০১৪ সাল থেকে ধারাবাহিকভাবে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে আমাদের বৈষম্যের কথা বলে আসছি আমরা কোন সমাধান পাইনি। অথচ আমাদেরকে বলা হয়ে থাকে মানুষ গড়ার মুল কারিগর। 

মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নিকট বিনীত অনুরোধ আপনি মানসম্মত প্রাথমিক শিক্ষার জন্য বহু পদক্ষেপ নিয়েছেন কিন্তু যারা এ পদক্ষেপগুলো বাস্তবায়নের মুল কারিগর তাদের মনে ক্ষোভ ও হতাশা থাকলে তা বাস্তবায়ন কঠিন। 
তাই আমরা এই বেতন বৈষম্য নিরসনে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সরাসরি হস্তক্ষেপ চাই।

কাজী আবু নাসের আজাদ
আহবায়ক
বাংলাদেশ প্রাথমিক সহকারি শিক্ষক অনলাইন সমিতি


Editor : Faruk Syed
736 Carmella Cres. Ottawa, Ontario, K4A 4V8, Canada
Tel: 613 820 5537, nrbnews24@gmail.com, editor@nrbnews24.com