Space for rent
Tuesday, 20 August, 2019, 8:13 AM
শিক্ষকদের তোপের মুখে বেহুশ প্রধান শিক্ষক
Published : Wednesday, 7 August, 2019 Time : 10:51 PM, Count: 30
A+ A- A
চৌগাছা (যশোর) প্রতিনিধিঃ যশোরের চৌগাছা সরকারি শাহাদৎ পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আজিজুর রহমান শিক্ষকদের সাথে কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে শিক্ষকদের হুমকির মুখে আতংকে বেহুশ হয়ে পড়েন। তিনি বর্তমানে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। মঙ্গলবার দুপুরে স্কুল চলাকালীন সময়ে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায় ঈদ-উল-আযহার আগেই পিএফ ফান্ডের (প্রভিডেন্ট ফান্ড) টাকা দাবি করে মঙ্গলবার দুপুরে স্কুল চলাকালীন সময়ে সহকারী শিক্ষকরা প্রধান শিক্ষককের অফিসে জমায়েত হন। প্রধান শিক্ষক টাকা দিতে অস্বীকার করলে স্কুলের সকল শিক্ষক একযোগে তার উপর ঈদের আগেই টাকা দেয়ার দাবিতে চাপ প্রয়োগ করতে থাকেন। এসময় শিক্ষকদের সাথে তার হাতাহাতির উপক্রম হলে তিনি আতংকে পড়ে গিয়ে বেহুশ হয়ে পড়েন। তখন স্কুলের কয়েকজন শিক্ষক তাকে উদ্ধার করে চৌগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করলে চিকিৎসকরা তাকে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে রেফার করেন। 

স্কুলের নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক শিক্ষক জানান, স্কুল জাতীয়করণ ঘোষণার আগে থেকেই প্রধান শিক্ষক আজিজুর রহমান নানা অনিয়মের সাথে জড়িত। তিনি বাড়ি ভাড়া হিসেবে নিজে স্কুলের ফান্ড থেকে মাসিক পাঁচ হাজার টাকা করে গ্রহণ করলেও অন্য কোন শিক্ষককে দেন নি। এছাড়াও তিনি স্কুলের বিভিন্ন ফান্ডের টাকা নিজের ইচ্ছামত ব্যবহার করলেও শিক্ষকদের পিএফ ফান্ডের (প্রভিডেন্ট ফান্ড) টাকা দিতে চান না। বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সাবেক সভাপতি ও সাবেক উপজেলা নির্বাহী অফিসার মারুফুল আলম শিক্ষকদের ২০ মাসের প্রভিডেন্ট ফান্ডের টাকা দিয়েছিলেন। শিক্ষকরা এখনো সতের মাসের টাকা পাবেন। 

ঈদের আগেই শিক্ষকরা সেই টাকা দাবি করলে প্রধান শিক্ষক নানা অযুহাত দেখাতে থাকেন। এ পরিস্থিতিতে মঙ্গলবার শিক্ষকরা একজোট হয়ে প্রধান শিক্ষককে বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে যাওয়ার তাগিদ দেন। কিন্তু প্রধান শিক্ষক তাতেও রাজি না হলে শিক্ষকরা তাকে সভাপতির নিকট যাওয়ার জন্য চাপ দিতে থাকেন। এরই একপর্যায়ে প্রধান শিক্ষক আতংকে অসুস্থতা বোধ করলে তাকে প্রথমে চৌগাছা হাসপাতালে পরে চিকিৎসকের পরামর্শে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয় এবং তিনি বর্তমানে সেখানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

এবিষয়ে মোবাইল ফোনে প্রধান শিক্ষক আজিজুর রহমান বলেন, আমি খুবই অসুস্থ। মাথাসহ বিভিন্ন স্থানে আঘাত লেগেছে। চিকিৎসকের পরামর্শে সিটিস্ক্যান করানো হয়েছে। সাক্ষাতে এ বিষয়ে বিস্তারিত কথা হবে। সদ্য জাতীয়করণকৃত হাইস্কুলটির প্রধান শিক্ষক সহকারী শিক্ষকদের কাছে এভাবে অপদস্থ হওয়ার বিষয়টি চৌগাছার টক অব দ্যা টাউনে পরিণত হয়েছে।



Editor in Chief: Omar Ali
356, East Rampura, Dhaka-1219, Bangladesh.
Cell: 01712479824, nrbnews24@gmail.com